Close

উত্তর কোরিয়ার কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণের সময়সীমা শেষ হয়েছে

উত্তর কোরিয়ার একটি কৃত্রিম উপগ্রহকে কক্ষপথে স্থাপনের জন্য উৎক্ষেপণের সময়সীমা শনিবার মাঝরাত বা আজ রবিবার দিনের প্রথম প্রহরে শেষ হয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার একটি কৃত্রিম উপগ্রহকে কক্ষপথে স্থাপনের জন্য উৎক্ষেপণের সময়সীমা শনিবার মাঝরাত বা আজ রবিবার দিনের প্রথম প্রহরে শেষ হয়েছে।

দেশটি আন্তর্জাতিক সামুদ্রিক সংস্থা বা আইএমও এবং জাপান সরকারকে তাদের এই উৎক্ষেপণ কর্মকাণ্ড পরিচালনার বিষয়টি অবহিত করেছিল।

এদিকে, জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া এখনও যেকোনো তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি মোকাবিলায় উচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।

এই সময়সীমা শুরু হওয়ার দিন গত ৩১শে মে, উত্তর কোরিয়া তংচাং-রি’তে অবস্থিত উত্তর-পশ্চিমের সোহায়ে কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণ ক্ষেত্র থেকে চোল্লিমা-১ রকেটের মাধ্যমে তাদের প্রথম সামরিক গোয়েন্দা উপগ্রহ, মাল্লিগিয়োং-১ উৎক্ষেপণ করে।

তবে, উত্তর কোরিয়া পরবর্তীতে ঘোষণা করে যে রকেটটি নতুন চালু করা দ্বিতীয় পর্যায়ের ইঞ্জিনের সমস্যার কারণে এর উচ্চগতি হারায় এবং কোরীয় উপদ্বীপের পশ্চিমে পীত সাগরে পড়ে বিধ্বস্ত হয়।

অন্যদিকে, উত্তর কোরিয়ার জাতীয় মহাকাশ উন্নয়ন প্রশাসন ইতিপূর্বে জানিয়েছিল যে এই ব্যর্থতার কারণ যাচাইয়ের পাশাপাশি একাধিক পরীক্ষা চালানোর পর তারা দ্বিতীয়বারের মতো এই উৎক্ষেপণ কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবে।

উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের বোন কিম ইয়ো জং’ও একটি বিবৃতি প্রকাশ করে এই প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে তার দেশ শীঘ্রই পৃথিবীর কক্ষপথে সামরিক গোয়েন্দা উপগ্রহ স্থাপনের মিশনটি সম্পন্ন করবে।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ উত্তর কোরিয়ার জন্য ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তি ব্যবহার করে যেকোনো উৎক্ষেপণ নিষিদ্ধ করেছে।

সূত্র: জাপানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এনএইচকে

লেখক

Leave a comment
scroll to top