Close

ভারতের দুই জায়গায় তিনটি দুটো যুদ্ধবিমান ভেঙে পড়লো সকাল সকাল!

২৮শে জানুয়ারী সকাল সকাল ভেঙে পড়লো ভারতীয় বায়ু সেনার দুটি যুদ্ধ বিমান। মধ্যপ্রদেশের রাজ্যের মোরেনার কাছে পাহাড়গড়ে অন্যটি রাজস্থানের ভরৎপুরে উচ্চাইন থানা এলাকায়।

২৮শে জানুয়ারী সকাল সকাল ভেঙে পড়লো ভারতীয় বায়ু সেনার ৩টি যুদ্ধ বিমান। মধ্যপ্রদেশের রাজ্যের মোরেনার কাছে পাহাড়গড়ে ভেঙেপড়ে সুখোই-৩০ এবং মিরাজ ২০০০ বিমান দুটি। সংবাদ সংস্থা ANI জানাচ্ছে গোয়ালিয়র থেকে উড়েছিলো বিমান বাহিনীর দুটি। একটি বিমানে দুজন, অন্যটিতে একজন চালক ছিলেন। দুজন বেঁচলে গেলেও অন্যজনের দেহের বিভিন্ন অংশ পাওয়া গেছে।

মোরেনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাই সিং নারওয়ারিয়া হিন্দুস্তান টাইমসকে বলেছে “বিমানটি এবং বিমানের ভিতর উপস্থিত মানুষদের তদারকি করতে ভারতীয় বায়ুসেনার একটি দল ঘটনাস্থলে পৌছেছে।  পুলিশ বিমানের কাছে একটি হাত খুঁজে পেয়েছে।”

মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান ট্যুইট করে বলেছেন ““মোরেনার কোলারাসের কাছে বিমান বাহিনীর সুখোই-৩০ এবং মিরাজ-২০০০ বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার খবর খুবই দুঃখজনক।  আমি স্থানীয় প্রশাসনকে দ্রুত উদ্ধার ও ত্রাণ কাজে বিমানবাহিনীকে সহযোগিতা করার নির্দেশ দিয়েছি।  আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি যে বিমানের পাইলটরা নিরাপদে থাকুক,” চৌহান হিন্দিতে টুইট করেছেন।”

অন্যদিকে রাজস্থানের ভরৎপুরে উচ্চাইন থানা এলাকায় আরেকটি বায়ু সেনার বিমান ভেঙে পড়েছে বলে জানিয়েছে ANI। সংবাদ সংস্থাটিকে ভরৎপুরের পুলিশ ডেপুটি সুপার জানিয়েছেন “বিমানটি বায়ুসেনার হলেও যুদ্ধ বিমান কিনা নিশ্চিত হওয়া যায়নি” 

অন্যদিকে বায়ুসেনার অফিশিয়াল  একাউন্টে মধ্যপ্রদেশে বিমান ভেঙে পড়া নিয়ে ট্যুইট করা হলেও, ভরৎপুরের বিমান ভেঙে পড়া নিয়ে এখনো কিছু বলা হয়নি।

মিরাজ ২০০০ যুদ্ধ বিমানটির তৈরি করে ফ্রান্স। অন্যদিকে সুখৈ ৩০ বিমানের নির্মাতা হল রাশিয়া। ফ্রান্সের তৈরি রাফায়েল বিমানের আগে সুখৈ ৩০ ই ছিলো ভারতের সবচেয়ে আধুনিক বিমান। ২ টি পৃথক এলাকায় বিমান ভেঙে পড়ার মধ্যে কোনো সংযোগ আছে কিনা তা এখনো জানা যায়নি। 

লেখক

Leave a comment
scroll to top