Close

কলেজে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু আগামী শনিবার থেকে

কলেজে কলেজে শুরু হতে চলেছে ভর্তির প্রক্রিয়া। রাজ্য উচ্চশিক্ষা দপ্তর সূত্রে খবর আগামী ১লা জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে ভর্তির প্রক্রিয়া।

রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দপ্তর সূত্রে খবর, আগামী শনিবার থেকে শুরু হতে চলেছে কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়া। এর আগে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তির প্রক্রিয়া নিয়ে যে ভাবনা চিন্তা চলছিল, এবার সেটা ফলপ্রসূ হচ্ছে না বলে জানা গেছে। পড়ুয়াদের নির্দিষ্ট কলেজের ওয়েবসাইটে গিয়ে ভর্তির আবেদন করতে হবে। এই বছর থেকেই নয়া শিক্ষানীতি অনুযায়ী পঠন-পাঠন শুরু হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

কলেজে ভর্তির নিয়ম নীতি নিয়ে রাজ্য শিক্ষাদপ্তর জানিয়েছে, ১লা জুলাই থেকে কলেজে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন পড়ুয়ারা। ১৫ জুলাই পর্যন্ত এই আবেদন করতে পারবেন তাঁরা। এবারের ভর্তি প্রক্রিয়া নিয়ে যাতে কোনও প্রশ্ন না ওঠে সেই কারণে রাজ্য উচ্চশিক্ষা দফতর পুরো বিষয়টির ব্যবস্থা অনলাইনে সম্পন্ন করার ব্যবস্থা করেছে। 

উচ্চশিক্ষা দপ্তর সূত্রে খবর, আবেদন থেকে ভর্তির পুরো প্রক্রিয়াই হবে অনলাইনে। পড়ুয়ারা একেবারে ক্লাস করতে কলেজ যাবেন, তার আগে সবকিছুই হবে অনলাইনে। আগামী ১৫ই জুলাই আবেদন জমা দেওয়া শেষ হলে কলেজে মেধা তালিকা প্রকাশ করা শুরু হবে। উচ্চশিক্ষা দফতর জানিয়েছে, ২০শে জুলাইয়ের মধ্যে সব মেধাতালিকা প্রকাশ করে ফেলতে হবে প্রতিটি কলেজকেই। ৩১শে জুলাইয়ের মধ্যে ভর্তির সমস্ত প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে এবং ১লা আগস্ট থেকে স্নাতকের নতুন বর্ষের ক্লাস শুরু করতে হবে কলেজগুলিকে।

এইবার, কলেজে ভর্তি হবে শুধুমাত্র মেধার ভিত্তিতে। আবেদনপত্রের জন্য কোনও পড়ুয়ার থেকে টাকা নেওয়া যাবে না বলে জানিয়েছে উচ্চশিক্ষা দপ্তর। প্রার্থী যোগ্য হলে, সেই প্রার্থীকে কলেজ কর্তৃপক্ষ ইমেল বা চিঠি দিয়ে জানাবে। পুরো ভর্তি প্রক্রিয়াটিই কলেজগুলিকে করতে হবে অনলাইনে। ভর্তির জন্য কোনও প্রার্থীর কলেজে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। অনলাইন পেমেন্ট বা সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কের মাধ্যমে ভর্তির টাকা জমা দিতে হবে আবেদনকারীকে।

চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি মেনেই তৈরি হয়েছে স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের সিলেবাস। স্নাতকোত্তীর্ণ হওয়ার জন্য এবার চার বছর করে পড়বেন পড়ুয়ারা। আর যদি স্নাতকোত্তর করতে চান, তাহলে আরও এক বছর পড়তে হবে তাদের। তবে জেনারেল ডিগ্রির ক্ষেত্রে আগের মতোই তিন বছরে শেষ হবে কোর্স। কোনও কারণে কোনও পড়ুয়া মাঝপথে যদি কলেজ ছেড়ে দেন, তাঁরা পরে পড়াশোনা করার সুযোগ পাবেন বলে জানা গেছে।

লেখক

Leave a comment
scroll to top