Close

প্রাচীন বনাঞ্চল হারাচ্ছে আফ্রিকা, বলছে গবেষণা

সাংঘাতিকভাবে বনাঞ্চল হ্রাস পাচ্ছে আফ্রিকায়। ইতিমধ্যেই প্রায় ১৪০০০ বর্গমাইল বনাঞ্চল হ্রাস পেয়েছে বলে জানিয়েছে এক গবেষণা।

সাম্প্রতিক তথ্যে দেখা গেছে, আফ্রিকায় গত বছর সবুজের আচ্ছাদন উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে, যার পরিমাণ প্রায় ৩.৬ মিলিয়ন হেক্টর (১৪,০০০ বর্গ মাইল)। ওয়ার্ল্ড রিসোর্স ইনস্টিটিউটের (ডব্লিউআরআই) গ্লোবাল ফরেস্ট ওয়াচ প্ল্যাটফর্মে পাওয়া মেরিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণা অনুসারে জানা যায়, এর মধ্যে প্রায় ৮০০০০০ হেক্টর (৩০০০ বর্গ মাইল) প্রাথমিক বা প্রাচীন গ্রীষ্মমন্ডলীয় বনাঞ্চল অন্তর্ভুক্ত।

ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অফ কঙ্গো (ডিআরসি), যেখানে প্রাথমিক বনের ক্ষয় ক্রমাগত বর্দ্ধনশীল, আফ্রিকা জুড়ে এই ক্ষয়ের বেশিরভাগটার জন্যই দায়ী। ক্রমবর্ধমান খাদ্যের চাহিদার প্রতিক্রিয়ায় কৃষি সম্প্রসারণের ফলে ২০২২ সালে দেশটির অর্ধ মিলিয়ন হেক্টরেরও বেশি প্রাথমিক বনাঞ্চল হারিয়ে গিয়েছে বলে জানা গেছে। অ্যাঙ্গোলা এবং ক্যামেরুনের মতো দেশে বনাঞ্চল ক্ষয় ত্বরান্বিত হলেও, ঘানায় সাম্প্রতিক বছরগুলিতে গ্রীষ্মমন্ডলীয় প্রাচীন বনাঞ্চল হ্রাস নাটকীয়ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে, যার বেশিরভাগই সংরক্ষিত এলাকার অন্তর্ভুক্ত, বলে সেই গবেষণা থেকে জানা যাচ্ছে।

গবেষণার রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ৭১% স্কোর সহ ঘানায় ২০২২ সালে যে কোনও গ্রীষ্মমন্ডলীয় দেশের অনুপাতে বনাঞ্চলের ক্ষয়ের পরিমাণ সবচেয়ে বেশি। “২০২২ সালে, দেশটি ১৮০০০ হেক্টর বন হারিয়েছে, এবং প্রাথমিক বনের ক্ষতির পরিমাণ তুলনামূলকভাবে কম হলেও, ঘানায় সামান্যই প্রাথমিক বনাঞ্চল অবশিষ্ট রয়েছে ,” সমীক্ষায় বলা হয়েছে। এই ক্ষতির কিছুটা কোকো উৎপাদন, কাঠ কাটা, দাবানল এবং সোনার খনির কার্যক্রমের সাথে জড়িত।

ইতিমধ্যে, গ্যাবন এবং কঙ্গো প্রজাতন্ত্রের সামগ্রিক প্রাথমিক বনের ক্ষতির হার কম রয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে যে প্রাথমিক বন রক্ষা করা জলবায়ু পরিবর্তনকে প্রশমিত করে; বনভূমির ব্যবহার এবং ব্যবহারের পরিবর্তন থেকে ভূমিক্ষয় এড়ানো, একটি স্থিতিশীল কার্বন ভান্ডারকে পরিপুষ্ট করে এবং কার্বনের একটি প্রধান সিঙ্ক হিসাবে কাজ করে জলবায়ু পরিবর্তনকে প্রশমিত করতে সহায়তা করে।

১৪৫টি দেশের প্রতিনিধিরা ২০২১ সালে সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের ক্লাইমেট সামিটে (সিওপি২৬) বনাঞ্চল ও ভূমি ব্যবহারের বিষয়ে গ্লাসগো লিডার্স ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করে এই দশকের শেষে বনাঞ্চল ধ্বংস রোধ করা এবং বনাঞ্চল পুনঃনির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। যদিও WRI বলেছে ঘোষণার এক বছর পরেও, লক্ষ্য অর্জনের উদ্দেশ্যে ক্ষয়ক্ষতি কমার বদলে বর্দ্ধনশীল এবং এই প্রবণতা কাঙ্খিত লক্ষ্যের বিপরীতেই অগ্রসর হচ্ছে।

লেখক

Leave a comment
scroll to top