Close

গুলিবিদ্ধ ভীম আর্মি প্রধান আজাদ, এখন অবস্থা স্থিতিশীল

ভীম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ উত্তরপ্রদেশের শাহারানপুরে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। পেট ঘেঁষে বেরিয়ে গেছে গুলি। বর্তমানে তার অবস্থা স্থিতিশীল।

সমাজবাদী পার্টির প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ বুধবার উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরে তার গাড়ির ভিতরে থাকাকালীন গুলিবিদ্ধ হন। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গুলিটি তার পেটে লাগে এবং তাকে দেওবন্দের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে আরও চিকিৎসার জন্য সাহারানপুর সিভিল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বর্তমানে তার অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গেছে।

হামলার সময় গাড়ির ভেতরে আজাদ ও তার ছোট ভাইসহ পাঁচজন ছিলেন। “বিকাল ৫টার দিকে পুলিশ খবর পায় যে কিছু আততায়ী দেওবন্দে চন্দ্রশেখর আজাদের গাড়িতে গুলি চালিয়েছে। আমরা সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখি গুলিটি তার পেটে ঘেঁষে চলে গেছে। ডাক্তাররা জানিয়েছেন তিনি এখন বিপদমুক্ত,” বলেছেন ডাঃ ভিপিন টাডা, সিনিয়র পুলিশ সুপার, সাহারানপুর।



ঘটনাস্থলে দেখা গিয়েছে গুলি আঘাতে ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছে SUVটির জানালা এবং যাত্রীর পাশের দরজায় বুলেটের ছিদ্র দেখা গিয়েছে। আজাদ যে আসনে বসেছিলেন সেখানেও বুলেটের ছিদ্র রয়েছে। এখনও পর্যন্ত কোনো গ্রেপ্তারির খবর পাওয়া যায়নি, টাডা বলেছেন পুলিশ ঘটনার পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তদন্ত করবে। “আমরা সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করব এবং ফরেনসিক দল প্রমাণ বিশ্লেষণ করব। আমরা আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেব,” তিনি বলেন।

আম আদমি পার্টির রাজ্যসভার সাংসদ সঞ্জয় সিং টুইট করেছেন: “উত্তরপ্রদেশে নেতাদের উপর হামলার শেষ নেই। আজাদ, একজন তরুণ নেতা যিনি দলিতদের জন্য সাহসিকতার সাথে লড়াই করেছেন, তার উপর আক্রমণ, প্রকাশ্য দিবালোকে রাজ্যে জঙ্গলরাজের বাস্তবতা প্রকাশ করে। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।”


এই হামলার তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। সমাজবাদী পার্টির সভাপতি এবং প্রাক্তন ইউপি মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব “শক্তিশালীদের দ্বারা সুরক্ষিত অপরাধীদের” আক্রমণকে “অত্যন্ত নিন্দনীয় এবং কাপুরুষোচিত কাজ” বলে অভিহিত করেছেন।

তিনি টুইট করেছেন “যখন জনপ্রতিনিধিরা বিজেপি শাসনে নিরাপদ নয়, তখন সাধারণ জনগণের কী হবে?” , রাজ্যে “জঙ্গলরাজ” চলছে বলে অখিলেশ যাদবের বক্তব্য। বিহারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব বলেছেন, এই হামলা “উত্তর প্রদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির প্রতিফলন”।



অবস্থা স্থিতিশীল হওয়ার পর একটি ভিডিওর মাধ্যমে চন্দ্রশেখর আজাদ ভীম আর্মির সদস্যদের শান্তি বজায় রাখতে অনুরোধ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, “আমরা আমাদের সমস্ত লড়াই সংবিধানের পথে লড়বো। আপনারা যদি আমায় ভালোবাসেন তাহলে দয়া করে শান্তি বজায় রাখুন। আমার উপর প্রকৃতির আশির্বাদ আছে, আমার কিছু হবে না।”

লেখক

Leave a comment
scroll to top