Close

যন্তর মন্তরে পিটি উষা, বললেন ভুল বুঝেছিলেন

যন্তর মন্তরে বিক্ষোভরত কুস্তিগীরদের সাথে দেখা করলেন পিটি উষা, বললেন ভুল বুঝেছিলেন, তিনি প্রথমে একজন ক্রীড়াবিদ তারপর একজন ক্রীড়া প্রশাসক।

Source: PTI

ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশানের (IOA) প্রেসিডেন্ট পিটি উষা, আজ, বুধবার, ৩রা মে, যন্তর মন্তরে বিক্ষোভরত কুস্তিগীর বজরঙ্গ পুনিয়া, ভিনেশ ফোগাট, সাক্ষী মালিক প্রমুখের সাথে দেখা করেছেন। রেসলিং ফাউন্ডেশন অফ ইন্ডিয়ার প্রধান বিজপির সাংসদ ব্রিজ ভূষন সিংএর বিরুদ্ধে যৌননিগ্রহের অভিযোগে কুস্তিগীরদের বিক্ষোভ ১১ দিনে পড়ল।

প্রাক্তন দৌড়বীর অবশ্য সাংবাদিকদের এড়িয়ে গেলেন, যদিও পুনিয়া জানিয়েছেন যে তিনি কুস্তিগীরদের সমর্থন জানিয়েছেন। “পিটি উষা আমাদের সাথে দেখা করেছেন, তাঁর সমর্থন সম্বন্ধে আশ্বস্ত করেছেন। তিনি বলেন, তিনি প্রথমে একজন ক্রীড়াবিদ তারপর একজন প্রশাসক। তিনি আশ্বস্ত করেছেন যে আমাদের ন্যায় পেতে সাহায্য করবেন। আমরা এখানেই থাকছি যতক্ষন না ব্রিজ ভূষন সিং গ্রেফতার হচ্ছে।”

“পিটি উষা বলেছেন, তিনি ভুল বুঝেছিলেন,” পুনিয়া জানান। পিটি উষা মন্তব্য করেছিলেন বিক্ষোভকারী কুস্তিগীরদের নিয়মানুবর্তীতার অভাব, শৃঙ্খলার অভাব। বলেছিলেন, এই উচ্ছৃঙ্খল আন্দোলনকারীরা দেশের ছবি নষ্ট করছে। তিনি অভিযোগ করেন প্রথমেই IOA তে না আসার জন্য, এবং অদন্তের ফলাফলের জন্য অপেক্ষা না করেই রাস্তায় নেমে পড়ার জন্য।

“IOA-তে যৌন হয়রানির জন্য একটি কমিটি করছে। রাস্তায় না গিয়ে তারা (বিক্ষোভকারী কুস্তিগীররা) আগে আমাদের কাছে আসতে পারত… কিন্তু তারা IOA-তে আসেনি। এটা খেলাধুলার জন্য ভালো নয়… শুধু কুস্তিগীরদের জন্য নয়। তাদের কিছু শৃঙ্খলা থাকা উচিত, “তিনি বলেছিলেন।

এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে কংগ্রেসের শশী থারুর, শিবসেনা থেকে প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী এবং তৃণমূলের মহুয়া মৈত্র সহ কুস্তিগীর এবং বিরোধী রাজনীতিবিদদের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন পিটি উষা।

“নিজে একজন মহিলা ক্রীড়াবিদ হওয়া সত্ত্বেও, তিনি অন্য মহিলা ক্রীড়াবিদদের কথা শুনছেন না। আমরা আশৈশব তাঁকে অনুসরণ করেছি, অনুপ্রাণিত হয়েছি। এখানে অনুশাসনের প্রশ্ন আসছে কেন…” মালিক জানিয়েছেন।

কমনওয়েলথ গেমস এবং বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে পদকপ্রাপ্ত ফোগাট পিটি ঊষার মন্তব্যকে ‘সংবেদনশীল’ বলে অভিহিত করেছেন এবং পুনিয়া বলেছেন, “আপনার শুনলে খারাপ লাগে, তিনি IOA প্রধান এবং সর্বোপরি নিজে একজন মহিলা হয়ে এই কথাগুলো যখন বলেন…” তিনি আর বলেন তিনমাস আগে জাতীয় অলিম্পিক বডির কাছে অভিযোগ করা হয়েছিল তো, কিন্তু ন্যায় পাইনি।

ব্রিজ ভূষণ সিংয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্তের জন্য জানুয়ারিতে ক্রীড়া মন্ত্রকের একটি কমিটির কথা উল্লেখ করেন পুনিয়া। সেই কমিটি তার প্রতিবেদন জমা দিয়েছে গত মাসে- প্রকাশ্যে আনা হয়নি। ওদিকে ব্রিজ ভূষণ নির্বাচনের আহ্বান জানায়। ভিনেশ ফোগাট কেন্দ্রীয় ক্রীড়া মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন যে তিনি কমিটি তৈরি করে আসলে পুরো ঘটনাই ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন।

পুলিশি তৎপরতার অভাব এবং WFI প্রধানের বিরুদ্ধে আরও ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে গত ২৩ শে এপ্রিল বিক্ষুব্ধ কুস্তিগীররা পুনরায় মিলিত হন যন্তর মন্তরে।

গত সপ্তাহে কুস্তিগীররা সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার পরে দিল্লি পুলিশ অবশেষে FIR দাখিল করতে সম্মত হয়েছে। কুস্তিগীরদের অভিযোগকে ‘গুরুতর’ বলেছেন প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়। অবশেষে ব্রিজ ভূষণ সিংয়ের বিরুদ্ধে দুটি FIR নথিভুক্ত করা হয়। ব্রিজ ভূষণ প্রথম থেকেই কুস্তিগীরদের দাবি অস্বীকার করে আসছেন।

পুনিয়া FIR গুলিকে ‘ন্যায়বিচারের জন্য দীর্ঘ লড়াইয়ে প্রথম জয়’ বলে অভিহিত করেছেন, তবে অন্যরা সতর্ক করেছন যতক্ষণ না তঁদের সমস্ত সমস্যার কথা শোনা না হয় ততক্ষণ তাঁরা তাঁদের প্রতিবাদ চালিয়ে যাবে। “ব্রিজ ভূষণকে গ্রেপ্তার না করা পর্যন্ত আমরা ধর্না প্রত্যাহার করব না,” মালিক বলেন, “এটা (FIR) প্রথম পদক্ষেপ। আমরা দীর্ঘ লড়াইয়ের জন্য এখানে এসেছি।”

লেখক

Leave a comment
scroll to top