Close

খোদ “রাম জন্মভূমি” অযোধ্যায় ভোটে মুসলিম যুবকের জয়, বিজেপি তৃতীয়

রামজন্মভূমি অযোধ্যায় যথেষ্ট চমকপ্রদ কান্ড ঘটিয়েছেন এক মুসলিম যুবক সুলতান আনসারি।

কর্ণাটকে কংগ্ৰেসের বিপুল ভোটে জয়, চিন্তায় গেরুয়া শিবির।তবে শনিবার ১৩ই মে, উত্তরপ্রদেশের পুরভোটে বিজেপির মুখ রক্ষা হলেও, অস্বস্তি বাড়িয়েছে “রাম জন্মভূমি” অযোধ্যার একটি আসন।

রামজন্মভূমি অযোধ্যায় যথেষ্ট চমকপ্রদ কান্ড ঘটিয়েছেন এক মুসলিম যুবক সুলতান আনসারি। সেখানে পুরভোটে বিপুল ভোটে জিতেছেন তিনি। হিন্দু প্রধান অঞ্চলে যেটি রামজন্মভূমি নামে পরিচিত, সেখানে বিজেপিকে বিপুল ভোটে হারিয়েছে।

গেরুয়া শিবির জিতেছে ২৭টি ওয়ার্ডে, বিরোধী সমাজবাদী পার্টি  জিতেছে ১৭টি ওয়ার্ড এবং নির্দল প্রার্থীরা জিতেছেন ১০টি ওয়ার্ডে।তারই একটি রাম “অভিরাম দাস ওয়ার্ড”।স্থানীয় বাসিন্দারা এর মধ্যে অবশ্য অবাক হচ্ছেন না। সুলতান,ফল ঘোষণার পর সংবাদমাধ্যমকে বলেন, “এটা অযোধ্যায় হিন্দু-মুসলিম শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের তথা সৌভ্রাতৃত্বের সেরা উদাহরণ হতে পারে।”

তবে এলাকায় মুসলিম ভোটার ৪৪০,খুবই সামান্য এর তুলনায় এলাকায় হিন্দু ভোটার ৩,৮৪৪।  ৪২ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন সুলতান।মোট ভোট পেয়েছেন ৯৯৬টি।দ্বিতীয় স্থানে আরও এক নির্দল প্রার্থী নগেন্দ্র মাঝি পেয়েছেন ৪৪২টি ভোট এবং গেরুয়া শিবির তৃতীয় স্থানে সমাপ্ত করেছে।

অযোধ্যায় সুলতানের জয় নিয়ে এক স্থানীয় বাসিন্দা সৌরভ সিং সংবাদমাধ্যমকে বলেন, “অযোধ্যা গোটা দুনিয়ায় রাম মন্দিরের জন্য পরিচিত, কিন্তু এখানে প্রচুর মসজিদও আছে। সুফি সন্তদের শতাব্দী প্রাচীন সমাধি রয়েছে। আমাদের এই ঐতিহ্য ধরে রাখতে হবে।”

এরপর সুলতানকে হিন্দু ভোটে জয় প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে তিনি সংবাদ মাধ্যমকে উত্তর দেন, “আমি এখানকার বাসিন্দা। যত দূর জানি আমার পূর্বপুরুষ গত ২০০ বছর ধরে এখানকার নাগরিক। ভোটে লড়ার কথা যখন হিন্দু বন্ধুদের জানাই ওঁরা আমাকে সমর্থন করেন এবং সবরকমভাবে উৎসাহ দেন।”

লেখক

Leave a comment
scroll to top