Close

অভিবাসী সংকটের জন্য দায়ী পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলি- তোয়াদেরা

সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক (CAR), ফস্টিন আর্চেঞ্জ তোয়াদেরা, অভিবাসী সংকটের জন্য পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলিকে দায়ী করেছেন।

সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক (CAR), ফস্টিন আর্চেঞ্জ তোয়াদেরা, অভিবাসী সংকটের জন্য পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলিকে দায়ী করেছেন।

সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক (CAR), ফস্টিন আর্চেঞ্জ তোয়াদেরা, অভিবাসী সংকটের জন্য পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলিকে দায়ী করেছেন। তাঁর মতে পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলো আফ্রিকার প্রাকৃতিক সম্পদ লুণ্ঠন করে, দাসত্ব ও ঔপনিবেশিকতার মাধ্যমে অর্থনৈতিক স্থিতাবস্থাকে নষ্ট করে অভিবাসন সংকটের জন্ম দিয়েছে। ইতালীয় দ্বীপ ল্যাম্পেডুসায় হাজার হাজার আফ্রিকান অভিবাসীর সাম্প্রতিক আগমনের কথা উল্লেখ করে, তোয়াদেরা বৃহস্পতিবার সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের সাধারণ পরিষদে বলেছিলেন যে “এই তরুণরা যারা আমাদের মহাদেশ, আফ্রিকার বর্তমান এবং ভবিষ্যতের প্রতিনিধিত্ব করে, তারা দেশগুলিতে পাড়ি দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে ইউরোপীয় মহাদেশের, একটি এল ডোরাডোর সন্ধানে।”

ল্যাম্পেডুসা, যা তিউনিসিয়ার উপকূল থেকে ১৫০ কিলোমিটার বা ৯০ মাইলেরও কম দূরত্বে অবস্থিত এবং লিবিয়া এবং সিসিলির মধ্যে প্রায় অর্ধেক দূরত্বে অবস্থান করছে, আফ্রিকার অভিবাসীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। এটি উত্তর আফ্রিকার থেকে অভিবাসীদের আগমনের জন্য একটি জনপ্রিয় গন্তব্য হয়ে উঠেছে। দ্বীপে সর্বাধিক ৪৫০ জনের থাকার মতো নির্মাণগুলি বর্তমানে ২০০০ জনেরও বেশি সংখ্যক মানুষের আশ্রয়কেন্দ্র বলে জানা গিয়েছে। গত সপ্তাহে, জাতিপুঞ্জের অভিবাসন সংস্থা রিপোর্ট করেছে, ল্যাম্পেডুসার কর্তৃপক্ষ জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে এই মর্মে তিন দিনের মধ্যে ১৯৯টি নৌকায় ৮০০০ জনেরও বেশি অভিবাসী প্রবেশ। স্থানীয় মেয়র ফিলিপ্পো মান্নিনোকে উদ্ধৃত করে এই রিপোর্টে বলা হয়েছে যে সঙ্কট বিন্দু একটি পর্যায়ে পৌঁছেছে যে এটি আর আগের অবস্থায় ফিরবে না।

ইতালির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতে, গত ১৪ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১২৫,৯২৮ জন অভিবাসী এবং শরণার্থী ইতালিতে এসেছে, যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় দ্বিগুণ। ইতালীযর প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি অভিবাসী সংকটের জন্য চোরাচালানকারীদের দায়ী করেছেন। একই সময়ে একজন সিনিয়র পোলিশ কূটনীতিবিদ, আরকাদিউস মুলারকজিক, এই সপ্তাহের শুরুতে দাবি করেছেন যে এই অভিবাসী সংখ্যার বৃদ্ধি ইউক্রেন সংঘাতের ভিত্তিতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সমর্থন ক্ষয় করার জন্য রাশিয়া দ্বারা পরিকল্পিত একটি হাইব্রিড অপারেশনের অংশ হতে পারে। যদিও, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের নেতা তোয়াদেরা জাতিপুঞ্জে তার মন্তব্যে অন্যরকম সুর তুলেছেন।

তোয়াদেরা বলেছেন, “অভিবাসী সংকটের এই বৃদ্ধি; দাসপ্রথা, উপনিবেশ এবং পশ্চিমা সাম্রাজ্যবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও অভ্যন্তরীণ সংঘাতের দ্বারা দরিদ্র দেশগুলির প্রাকৃতিক সম্পদ লুণ্ঠনের একটি ভয়ঙ্কর পরিণতি।” গত সপ্তাহে, জার্মানি, ইইউ-র ডাবলিন রেগুলেশনের অধীনে তার প্রতিশ্রুতি পূরণে রোমের ব্যর্থতার কথা উল্লেখ করে স্বেচ্ছায় শরণার্থীদের নেওয়ার ভিত্তিতে ইতালির সাথে একটি চুক্তি স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছে। একটি স্বেচ্ছাসেবী ইইউ সংহতি উদ্যোগের অধীনে, জার্মানি যথেষ্ট চাপের সম্মুখীন সদস্য রাষ্ট্রগুলির কাছ থেকে ৩,৫০০ জন অভিবাসীদের সরিয়ে এনে সহায়তা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।

লেখক

Leave a comment
scroll to top