Close

রাশিয়ান তেল কিনতে ইউয়ান ব্যবহার করছে ভারত

রয়টার্সের একটি প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, রাশিয়ান তেল কিনতে ইউয়ান ব্যবহার করছে ভারত। রাশিয়ান তেল ইউয়ানে কেনায় শীর্ষে ইন্ডিয়ান অয়েল।

Image by PublicDomainPictures from Pixabay

সংবাদসংস্থা রয়টার্স সোমবার জানিয়েছে, ভারতীয় তৈল শোধনকারীরা রাশিয়া থেকে তেল আমদানির জন্য মার্কিন ডলারের পরিবর্তে চীনা ইউয়ান-এর মাধ্যমে লেনদেন শুরু করেছে। সূত্র অনুসারে, রাশিয়ান অপরিশোধিত তেলের বৃহত্তম ক্রেতা ভারতের ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন, গত মাসে ইউয়ান-এর মাধ্যমে কিছু পরিমাণ রাশিয়ান তৈল ক্রয়ের বিষয়ে প্রথম রাষ্ট্রীয় শোধনকারক হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। অন্য দুটি সূত্র দাবি করেছে, ভারতের তিনটি বেসরকারি শোধনাগারের মধ্যে অন্তত দুটি রাশিয়ান তেল আমদানির জন্য ইউয়ান-এর মাধ্যমে অন্ততঃ কিছু পরিমাণ অর্থ লেনদেন করছে।

রয়টার্সের রিপোর্টে একটি নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভারতীয় সরকারী সূত্রের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, “যদি ব্যাঙ্কগুলি ডলারে বাণিজ্য নিষ্পত্তি করতে ইচ্ছুক না হয় তবে, কিছু শোধক ইউয়ানের মতো অন্যান্য মুদ্রায় অর্থ প্রদান করছে।” সূত্রগুলি উল্লেখ করেছে যে এটি অবিলম্বে নির্ধারণ করা যায়নি যে কত রাশিয়ান তেল ভারতীয় পরিশোধক ইউয়ান দিয়ে কিনেছে। একই সাথে সূত্রগুলির দাবি, ইন্ডিয়ান অয়েল একাধিক কার্গোর জন্য রেনমিনবিতে অর্থ প্রদান করেছে। ভারতীয় কর্মকর্তারা ইউক্রেনের সংঘাতের প্রতিক্রিয়ায় মস্কোর বিরুদ্ধে পশ্চিমাদের গৃহীত পদক্ষেপকে সমর্থন করেননি। যদিও নয়াদিল্লি বিধিনিষেধে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ভারতীয় ব্যাঙ্ক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলি পেমেন্ট ক্লিয়ার করার বিষয়ে সতর্ক থাকছে যাতে অনিচ্ছাকৃতভাবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে প্রবর্তিত অন্যান্য পদক্ষেপের সমর্থিত পদক্ষেপ না গৃহীত হয়।

গত ৫ই ডিসেম্বর EU, G7 দেশগুলি এবং অস্ট্রেলিয়া, রাশিয়ান সমুদ্রজাত তেল রপ্তানির উপর ব্যারেল প্রতি ৬০ ডলার মূল্যের ক্যাপ প্রবর্তন করেছিল৷ প্রক্রিয়াটি পশ্চিমা সংস্থাগুলিকে রাশিয়ান তেলের শিপারদের বীমা এবং অন্যান্য পরিষেবা সরবরাহ করতে বাধা দিয়েছিল যদি না কার্গো ক্রয় করা হয় অথবা নির্ধারিত মূল্যের নিচে ক্রয় করার বরাতপ্রাপ্ত হয়। পেট্রোলিয়াম রপ্তানিকে লক্ষ্য করে অনুরূপ একটি ব্যবস্থা গত ৫ই ফেব্রুয়ারি কার্যকর হয়েছিল। এটি রাশিয়া থেকে আমদানি করা পরিশোধিত পেট্রোলিয়াম পণ্যের দাম ডিজেলের জন্য ব্যারেল প্রতি ১০০ ডলার এবং জ্বালানী তেলের জন্য ব্যারেল প্রতি ৪৫ ডলার নির্ধারণ করে। পদক্ষেপগুলি মস্কোর জ্বালানি আয় হ্রাস করার লক্ষ্যেই নেওয়া হয়েছিল বলে সূত্রের খবর।

রাশিয়া নিষেধাজ্ঞার প্রতিক্রিয়ায় এশিয়া এবং অন্যান্য গন্তব্যে সরবরাহের পথ পরিবর্তন করেছে, যা মস্কো এবং এর গ্রাহকদের অর্থপ্রদানের নিষ্পত্তির জন্য ডলারের বিকল্প খুঁজতে বাধ্য করেছে। রয়টার্সের মতে, ভারতীয় শোধনকারীরা UAE-র দিরহামে রাশিয়ান তেলের জন্য কিছু নন-ডলার পেমেন্টও নিষ্পত্তি করেছিল। কমোডিটি অ্যানালিটিক্স ফার্ম কেপলারের তথ্য অনুসারে, ভারতে রাশিয়ার তেল রপ্তানি গত মাসে একটি নতুন শীর্ষে উঠেছিল এবং এটি টানা দশ মাস ধরে বেড়েছে। কেপলারের মতে, বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম তেল আমদানিকারক এবং উপভোক্তা, ভারতে ছাড়প্রাপ্ত রাশিয়ান তেলের প্রতিদিনের চালান ২.২ মিলিয়ন ব্যারেলের হিসাবে বেড়েছে।

লেখক

Leave a comment
scroll to top