Close

২০ বছর পর রাওয়ান্ডা গণহত্যায় অভিযুক্ত ফেরার পুলিশ আধিকারিক গ্রেফতার

দক্ষিণ আফ্রিকায় গ্রেফতার হয়েছেন ১৯৯৪ সালের রাওয়ান্ডা গণহত্যার অন্যতম অভিযুক্ত তৎকালীন পুলিশ কর্তা।

দক্ষিণ আফ্রিকায় গ্রেফতার হয়েছেন ১৯৯৪ সালের রাওয়ান্ডা গণহত্যার অন্যতম অভিযুক্ত তৎকালীন পুলিশ কর্তা। দীর্ঘদিন তিনি ফেরার ছিলেন, জানিয়েছে রাশিয়া টুডে।

ফুলজেন্স কাইশেমা(৬২) যিনি দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে পলাতক ছিলেন বলে জানা গেছে, বুধবার, ২৪শে মে পার্লে জাতিসংঘের তদন্তকারীরা এবং দক্ষিণ আফ্রিকার কর্তৃপক্ষের যৌথ অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়ে।

১৯৯৪ সালের ১৫ই এপ্রিল কিভুমু সম্প্রদায়ের নাইঙ্গে ক্যাথলিক চার্চে নারী শিশু সহ ২০০০ তুৎসী উদ্বাস্তুকে অত্যার দায়ে রাওয়ান্ডার গণহত্যার প্রেক্ষিতে গঠিত জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত তাকে অভিযুক্ত করে।

আদালতের মতে, সেই সময়ে একজন হুতু পুলিশ পরিদর্শক কাইশেমা সরাসরি “এই গণহত্যার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে অংশ নিয়েছিলেন।” তিনি শরণার্থীরা ভিতরে থাকাকালীন গির্জা পুড়িয়ে দেওয়ার জন্য পেট্রোল কিনেছিলেন এবং বিতরণ করেছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। কাঠামো ভেঙে ফেলার জন্য বুলডোজার, ভিকটিমদের কবর দেওয়া এবং হত্যা করার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।

অভিযুক্ত হওয়ার পর থেকে সে পলাতক ছিল, তার পরিচয় এবং উপস্থিতি গোপন করার জন্য অনেক ” মিথ্যা নথি ব্যবহার করে,” তদন্তকারীরা বলেছেন।

জাতিসংঘের মতে, ১৯৯৪ সালের এপ্রিল থেকে জুলাইয়ের মধ্যে ঘটে যাওয়া গণহত্যার সময় আনুমানিক ৮০০,০০০ তুতসি এবং মধ্যপন্থী হুতু নিহত হয়েছিল।

লেখক

Leave a comment
scroll to top