Close

কেন্দ্রীয় সংস্থার অপব্যবহারের অভিযোগ – ১৪টি বিরোধী দল গেল সুপ্রিম কোর্টে

শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে সুপ্রিম কোর্টে গেল ১৪টি বিরোধী রাজনৈতিক দল।

শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে সুপ্রিম কোর্টে গেল ১৪টি বিরোধী রাজনৈতিক দল।

ভারতের সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (CBI), এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ED) প্রভৃতি কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে ১৪টি বিরোধী রাজনৈতিক দল শুক্রবার, ২৪শে মার্চ, সুপ্রিম কোর্টে গেল, বার অ্যান্ড বেঞ্চ তাদের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে।

বিরোধী দলগুলির পক্ষে বর্ষীয়ান আইনজীবি অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগপত্র জমা করেন।

বিরোধী দলগুলি দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ জানিয়ে আসছে যে ভারতের শাসক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ED, CBI এর মতো কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির ক্ষমতা অপব্যবহার করেছে। তাদের অভিযোগ যে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে দমন করতে বিজেপি এই কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলিকে দিয়ে ভিত্তিহীন মামলা সাজাচ্ছে বিরোধী দলনেতাদের বিরুদ্ধে।

বিরোধী দলগুলির আরও অভিযোগ যে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির চাপের মুখে যদি কোনো বিরোধী দলনেতা বিজেপিতে যোগ দেয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

বিরোধী দলগুলির পক্ষে জমা দেওয়া অভিযোগপত্রে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলি দ্বারা গ্রেফতারির পূর্ববর্তী ও পরবর্তী নির্দেশিকা সুস্পষ্ট ভাবে জানানোরও আর্জি করা হয়।

তাৎপর্যপূর্ণভাবে, গত বৃহস্পতিবার, ২৩শে মার্চ, রাহুল গান্ধীকে সুরাটের একটি আদালত একটি মানহানি মামলায় দুই বছরের কারাদন্ডের সাজা শোনানোর পরই বিরোধী দলগুলির পক্ষ থেকে শুক্রবার এই পদক্ষেপ এল। গত বৃহস্পতিবার রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে কারাদন্ডের সাজা ঘোষণার পর হেমন্ত সোরেন, অরবিন্দ কেজরিওয়ালের মতো নেতারা এই সাজা ঘোষণার বিরোধীতা করে।

শুক্রবার, কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়া বিরোধী দলগুলির মধ্যে ছিল ভারতের জাতীয় কংগ্রেস, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস, আম আদমি পার্টি, জনতা দল (ইউনাইটেড), ভারত রাষ্ট্র সমিতি, সমাজবাদী পার্টি, শিবসেনা (উদ্ধব ঠাকরে), বাম দলগুলি এবং দ্রাবিড় মুন্নেত্রা কাজাঘাম।

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ডি.ওয়াই চন্দ্রচূড় কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির অপব্যবহার সংক্রান্ত এই মামলাটির শুনানি ৫ই এপ্রিল শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন।

লেখক

Leave a comment
scroll to top