Close

রুটিন নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র বিক্ষোভ

পরীক্ষার রুটিন নিয়ে অসহিষ্ণুতা। পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভরত সংশ্লিষ্ট কলেজের ষষ্ঠ সেমেস্টারের ছাত্র ছাত্রীরা।

পরীক্ষার রুটিন নিয়ে অসহিষ্ণুতা। পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভরত সংশ্লিষ্ট কলেজের ষষ্ঠ সেমেস্টারের ছাত্র ছাত্রীরা।

এই বুধবার পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভরত সংশ্লিষ্ট কলেজের ষষ্ঠ সেমেস্টারের ছাত্র ছাত্রীরা। পরীক্ষার রুটিন নিয়ে বিক্ষোভ রত ছাত্র ছাত্রীরা। তাদের অভিযোগ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদের সমস্যার কথা মাথায় না রেখে পরপর দুই দিন যথাক্রমে দুইটি করে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রাথমিকভাবে তারা এর প্রতিবাদে গণ ইমেইল করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে। যদিও তারপর কোনও সুরাহা না হওয়ায় তারা বিশ্ববিদ্যালয় অভিযান করে।



পরপর দুই দিন চারটি পরীক্ষা নিয়ে অসহিষ্ণু শিক্ষার্থীরা। ওই দুই দিন যথাক্রমে একটি অনার্স ও একটি অনার্স-ডিএসই পেপারের পরীক্ষা স্থির করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়। পরীক্ষার মানসিক প্রস্তুতি নিতে অসুবিধার মুখে ছাত্র ছাত্রীরা।তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে তাদের দাবি; রুটিন বদলাও! এই দিন দুপুর ১২টা থেকে বিকাল চারটে পর্যন্ত একদফা আন্দোলন করেন ছাত্র ছাত্রীরা। আন্দোলন চলাকালীন অসুস্থ হয়ে পড়েন একজন ছাত্র। বিশ্ববিদ্যালয়ের কন্ট্রোলার অফ এক্জামিনেশনের বিরুদ্ধে তাদের অভিযোগ, তিনি বিক্ষোভরত ছাত্র ছাত্রীদের পুলিশে ধরিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন। তাই তার পরেও তাদের অবস্থান চলতে থাকে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, প্রথমে তাদের দাবি নিয়ে অনীহা প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়। যদিও তারপর তাদের সাথে আলোচনার পর কলেজ অধ্যক্ষদের সাথে দ্বিতীয় দফায় বৈঠক করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ। এই মর্মে, কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে একটি রিভাইসড রুটিন দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। যদিও পড়ুয়াদের বক্তব্য তাদের দাবি সম্পূর্ণ ভাবে পূরণ হয়নি। চারটি পরীক্ষার জন্য চারটি আলাদা দিনের দাবি ছিল। অধিকাংশ ছাত্রছাত্রীদের ক্ষেত্রে চারদিনের বদলে তিনদিনে দিতে হবে পরীক্ষা। অর্থাৎ এখনও একদিন দুইটি পরীক্ষা একসাথে দিতে হবে বলে জানা গিয়েছে।

লেখক

Leave a comment
scroll to top